বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১
হোম » অর্থ ও বাণিজ্য » স্বল্পোন্নত থেকে উত্তরণ এ বছরই
স্বল্পোন্নত থেকে উত্তরণ এ বছরই

স্বল্পোন্নত থেকে উত্তরণ এ বছরই

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারির মধ্যে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হবে বাংলাদেশ। তবে এই ঘোষণা ২০২৪ থেকে ২০২৬ সালের মধ্যে আসবে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য ড. শামসুল আলম। আনুষ্ঠানিক এই ঘোষণা আসার আগে আজ মঙ্গলবার সরকারের সঙ্গে বৈঠকে বসবে জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসির (সিডিপি) বিশেষজ্ঞ গ্রুপ। বৈঠকে সরকার বাংলাদেশের সর্বশেষ পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করবে।

বৈঠকে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন একটি উপস্থাপনা দেবেন এবং জাতিসংঘের বিশেষজ্ঞরা তাঁদের প্রশ্ন বা মন্তব্য করবেন।

বাংলাদেশের অবস্থান ভালো জানিয়ে ড. শামসুল আলম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘কাল (আজ মঙ্গলবার) আমাদের একটি বৈঠক আছে সেখানে আমরা আমাদের অবস্থান তুলে ধরব। তবে আমরা ভালো করছি। অর্থনীতিতে করোনার প্রভাব থাকলেও আমরা আশা করছি, জাতিসংঘ থেকে ২০২৪ অথবা ২০২৬ সালের মধ্যে আমরা গ্যাজুয়েশনের ঘোষণা পাব।’

উল্লেখ্য, তিনটি সূচকের যেকোনো দুটিতে উত্তীর্ণ হলেই গ্র্যাজুয়েশন পাওয়া যায়। বাংলাদেশ তিনটি সূচকেই অত্যন্ত শক্ত অবস্থানে আছে। তিনটি সূচকের মধ্যে প্রয়োজন মাথাপিছু আয় এক হাজার ২২২ ডলার, মানবসম্পদ সূচকে ৬৬ পয়েন্ট বা বেশি এবং অর্থনৈতিক ও পরিবেশগত সূচকে ৩২ পয়েন্ট বা কম। এর বিপরীতে সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী বাংলাদেশের চিত্র হচ্ছে যথাক্রমে এক হাজার ৯০৯ ডলার, ৭২.৪ পয়েন্ট ও ২৭ পয়েন্ট। এ বিষয়ে পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন বলেন, ২০১৮ সালে বাংলাদেশ প্রতিটি সূচকেই অত্যন্ত ভালো অবস্থানে ছিল।

আরো পড়ুন

সোনার দাম ভরিতে বাড়ল ১৯৮৩ টাকা

সোনার দাম ভরিতে বাড়ল ১৯৮৩ টাকা

দেশের বাজারে আবারও সোনার দাম ভরিতে ১ হাজার ৯৮৩ টাকা বাড়ছে। যা বুধবার (৬ জানুয়ারি) …