রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০

সেবা খাতের ফি বিদেশে পাঠাতে অনুমোদন লাগবে না

চলতি হিসাবের অন্তর্ভুক্ত সেবা খাতের ব্যয় বিদেশে পাঠানোর পদ্ধতি সহজ করল বাংলাদেশ ব্যাংক। এত দিন বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন ছাড়া শুধু প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ ফি বাবদ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের বার্ষিক মোট বিক্রয়ের ১ শতাংশ অর্থ বিদেশে পাঠানো যেত। এখন থেকে এ দুটি খাতের পাশাপাশি অন্যান্য সেবা ব্যয় যেমন নিরীক্ষা, সার্টিফিকেশন, কমিশনিং, টেস্টিং প্রভৃতি ফিও বিদেশে পাঠাতে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন লাগবে না। তবে সব খাত মিলে এ বাবদ অর্থ পাঠানোর পরিমাণ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের বার্ষিক বিক্রয়ের ১ শতাংশের বেশি হতে পারবে না। গতকাল বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগ থেকে এসংক্রান্ত সার্কুলার জারি করা হয়েছে।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, প্রচলিত ব্যবস্থায় প্রশিক্ষণ এবং পরামর্শ ফি সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের পূর্ববর্তী বছরের আয়কর বিবরণীতে ঘোষিত বিক্রয়ের ১ শতাংশ অর্থ বিদেশে প্রেরণযোগ্য। এখন থেকে আলোচ্য প্রাধিকারের আওতায় অন্যান্য সেবা ব্যয় যেমন নিরীক্ষা, সার্টিফিকেশন, কমিশনিং, টেস্টিং প্রভৃতি ফি বাবদ নির্বাহ করা যাবে। এ সুবিধা ইজেডের প্রতিষ্ঠান, যারা স্থনীয় বাজারে পণ্য টাকায় বিক্রি করে তাদের জন্যও প্রযোজ্য হবে। তবে রয়ালটি, টেকনিক্যাল নলেজ, অ্যাসিস্ট্যান্ট ফি, ফ্রাঞ্চাইজি ফি পরিশোধের ক্ষেত্রে বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) অনুমোদন এবং অন্য ক্ষেত্রে কোনো কর্তৃপক্ষের অনুমোদনের আবশ্যকতা থাকলে তা গ্রহণ করতে হবে।

এদিকে একই বিভাগ থেকে আরেক সার্কুলারের মাধ্যমে সফটওয়্যার রক্ষণাবেক্ষণ ফি বাবদ অর্থ প্রেরণের ক্ষেত্রে প্রথমবার বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন গ্রহণের আবশ্যকতা প্রত্যাহার করে অনুমোদিত ডিলার ব্যাংকগুলোকে প্রাধিকার দেওয়া হয়েছে।

আরো পড়ুন

বংশী নদীর বালুতে প্রভাবশালীদের থাবা, বিলীন হচ্ছে ফসলি জমি

বংশী নদীর বালুতে প্রভাবশালীদের থাবা, বিলীন হচ্ছে ফসলি জমি

ঢাকার ধামরাইয়ে বংশী নদীতে অবৈধ ড্রেজার বসিয়ে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে আসছে এক শ্রেণীর …