বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০

মেসেঞ্জারকে আইফোনের ডিফল্ট অ্যাপ হতে দেয়নি অ্যাপল

মেসেঞ্জারকে আইফোনের আইওএসে ‘ডিফল্ট মেসেজিং অ্যাপ’ হিসেবে দিতে চাইছে ফেইসবুক। কিন্তু এতে রাজি নয় অ্যাপল।

ফেইসবুকের মেসেঞ্জার প্রধান স্ট্যান চাডনোভস্কি জানিয়েছেন, একবার নয়, বেশ কয়েকবার অ্যাপলকে এই ব্যাপারটি বিবেচনা করার অনুরোধ জানিয়েছে ফেইসবুক। কিন্তু অ্যাপল প্রতিবারই মানা করেছে। প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট গিজমোডোর মন্তব্য, বিষয়টি নিয়ে ‘অ্যাপলের উপর ফের খেপেছে ফেইসবুক’।

“আমাদের মনে হয় মানুষকে ফোনে ভিন্ন ভিন্ন মেসেজিং অ্যাপ থেকে বেছে নেওয়া, এবং ডিফল্ট হিসেবে মেসেজিং অ্যাপ ব্যবহার করতে দেওয়া উচিত। গতানুগতিক হিসেবে, সেদিকেই কিন্তু সব এগোচ্ছে।” – বলেছেন চাডনোভস্কি।

গিজমোডো লিখেছে, অনেকে ফোনের সঙ্গে আসা মেসেজিং অ্যাপ ব্যবহার করতে চান, অনেকে আবার মেসেঞ্জার বা অন্য কোনো সেবা ব্যবহার করতে চান। দুটোই ঠিক আছে। অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্মও সেভাবেই চলে। অ্যাপলের সুরক্ষা ও গোপনতার দেওয়ালে সাজানো বাগানে ভোক্তাদের পছন্দকে সীমিত করে ফেলছে।

চাডনোভস্কির ভাষ্যে, অ্যাপল যদি আরেকটু অ্যান্ড্রয়েডের মতো হয়, তাহলে মেসেজিং অ্যাপের বেলায় ফেইসবুক আরও ন্যায্যভাবে প্রতিযোগিতা করতে পারে।

অবশ্য ফেইসবুক অ্যাপলের ওপর ছোট একটা জয় পেয়েছে সম্প্রতি। অ্যাপল সম্প্রতি জানিয়েছে, সাময়িকভাবে ফেইসবুক ইভেন্ট থেকে ৩০ শতাংশ করে চার্জ রাখবে না তারা। ফেইসবুকের দীর্ঘদিনে দাবি ছিল এটি। কোভিড-১৯ বাস্তবতায় অনেকেই নতুন করে নিজেদের ক্ষতি পুষিয়ে ব্যবসা করার চেষ্টা করছের ফেইসবুক ইভেন্টের মাধ্যমে।

তবে, ফেইসবুক গেইমিংয়ের মাধ্যমে আইফোন ব্যবহারকারীদেরকে গেইম খেলতে দেবে না অ্যাপল। এ ব্যাপারে নিজেদের অ্যাপ স্টোরের ক্লাউড স্ট্রিমিং সংক্রান্ত নীতিমালা মেনে চলবে সাইটটি। অ্যাপ স্টোরের অনুমোদন পেতে গেইম অংশ বাদ দিয়ে আইওএসে নিজেদের অ্যাপ ছাড়তে হয়েছে ফেইসবুককে।

আরো পড়ুন

নতুন আইফোন ১২ আসছে ১৩ অক্টোবর

প্রতিবছর সেপ্টেম্বরে নতুন আইফোন অবমুক্ত করে অ্যাপল। কিন্তু মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে ফোনের উ’পাদন ব্যাহত হয়। …