মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০

মার্কিন রাষ্ট্রদূত হত্যার পরিকল্পনা: দক্ষিণ আফ্রিকা বলছে কোনো প্রমাণ নেই

দক্ষিণ আফ্রিকার রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা সংস্থা বলেছে, প্রিটোরিয়ায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত লানা মার্ক্সকে হত্যার বিষয়ে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান পরিকল্পনা করেছে বলে মার্কিন গণমাধ্যম যে অভিযোগ তুলেছে তার কোনো প্রমাণ পাওয়া যায় নি।

শুক্রবার প্রকাশিত এক বিবৃতিতে নিরাপত্তা সংস্থার মুখপাত্র মাভা স্কট বলেন, দক্ষিণ আফ্রিকার কর্মকর্তারা মার্কিন কর্মকর্তাদেরকে এ বিষয়ে বাড়তি তথ্য দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছিলেন। এ পর্যন্ত যে সমস্ত তথ্য দেয়া হয়েছে তা ওই অভিযোগ প্রমাণের জন্য যথেষ্ট ও বিশ্বাসযোগ্য কিছু নয়।

কয়েকদিন আগে মার্কিন পলিটিকো ম্যাগাজিন এক প্রতিবেদনে দাবি করেছে যে, আগামী ৩ নভেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠানের আগেই দক্ষিণ আফ্রিকায় নিযুক্ত আমেরিকার রাষ্ট্রদূত লানা মার্ক্সকে হত্যার পরিকল্পনা নিয়েছে তেহরান। ইরানের ইসলামী বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র কুদস ফোর্সের সাবেক কমান্ডার লেফটেনেন্ট জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার প্রতিশোধ নিতে ইরান এ পরিকল্পনা করছে।

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার বরাত দিয়ে তৈরি করা ওই প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক থাকার কারণে লানা মার্ক্সকে হত্যার জন্য বেছে নিয়েছে ইরান।

মার্কিন পলিটিকো ম্যাগাজিনের এই রিপোর্টে ভিত্তিহীন বলে প্রত্যাখ্যান করেছে ইরান। ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ইরানভীতি ছড়িয়ে দেয়ার জন্য এই কুটকৌশল বেছে নিয়েছে আমেরিকা। পলিটিকো ম্যাগাজিনে প্রতিবেদন প্রকাশের পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ইরান এ ধরনের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করলে দেশটির ওপর এর চেয়ে এক হাজার গুণ শক্তিশালী হামলা চালানো হবে।

আরো পড়ুন

আফগানিস্তানের সরকার ও জনগণের পাশে রয়েছে ইরান: প্রেসিডেন্ট রুহানি

ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেছেন, তার দেশের সরকার ও জনগণ সব সময় আফগান সরকার ও …