শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২২
হোম » নির্বাচিত কলাম » বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে সরকার কাজ করছে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রীমোজাম্মেল হক,

বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে সরকার কাজ করছে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রীমোজাম্মেল হক,

বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান  সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে বলেছেন,মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।বীর মুক্তিযোদ্ধারা এখন  ন্যূনতম ২০ হাজার টাকা করে ভাতা পাচ্ছেন।এ ছাড়া অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য  ৩০ হাজার বীর নিবাস নির্মাণ করে দেওয়া হচ্ছে। [৩০ ডিসেম্বর] রাজধানীর বনানীতে মহান স্বাধীনতা ও বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন আয়োজিত বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের  সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

মুক্তিযদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।মোজাম্মেল হক বলেন, আমরা ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের নির্দিষ্ট স্থান মুক্তিযুদ্ধের সূতিকাগার হিসেবে সংরক্ষণ করতে চাই।যেখানে মানুষ গিয়ে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানতে পারবে।এ ছাড়া মুক্তিযুদ্ধের সময় যেসব স্থানে যুদ্ধ হয়েছিল,সেসব স্থান আমরা সংরক্ষণ করছি।বধ্যভূমিগুলোও আমরা সংরক্ষণ করছি।এ ছাড়া যদি কোনও মুক্তিযোদ্ধা মারা যান,তাদের একই রকম ডিজাইনে কবর দেওয়া হবে,যেন ৫০ বছর পরেও একটি কবর দেখে বোঝা যায়,এটি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার কবর।

বীর মুক্তিযোদ্ধারা বিনামূল্যে হাসপাতালে  চিকিৎসা সেবা পাবেন জানিয়ে মোজাম্মেল হক বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বিনামূল্যে শতভাগ চিকিৎসা সেবা প্রদানের অ্যাগ্রিমেন্ট হয়ে গেছে। জেলা,উপজেলাসহ দেশের সব স্থানে বীর মুক্তিযোদ্ধারা বিনামূল্যে শতভাগ চিকিৎসা সেবা পাবেন।সেখানে চিকিৎসা,ওষুধ,টেস্ট যা প্রয়োজন, তার সবই বিনামূল্যে প্রদান করা হবে।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে আমরা ২৩ বছরের মুক্তিসংগ্রাম এবং ৯ মাস মুক্তিযুদ্ধ করে বাংলাদেশ স্বাধীন করেছিলাম।দেশ স্বাধীন হওয়ার পর বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন,তিনি ৩ বছর দেশকে কিছুই দিতে পারবেন না।অথচ তিনি সবই দিয়েছিলেন।বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে ধস নেমেছিল।

তিনি বলেন,স্বাধীনতার ৫০ বছরের মধ্যে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় মাত্র ২১ বছর।আর অন্যান্য দল ২৯ বছর ক্ষমতায় ছিল।তারা ২৯ বছরে কতটুকু উন্নয়ন করেছে,আর আওয়ামী লীগ ২১ বছরে কতটুকু উন্নয়ন করেছে তা মিলিয়ে দেখলেই দেশের মানুষ বুঝতে পারবে, আগামী দিনে দেশের উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে কাদের দরকার।

ঢাকা উত্তর  সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে বীর মুক্তিযোদ্ধা সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ,মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃনাল কান্তি দাস,  প্রমুখ।

আরো পড়ুন

নারায়ণগঞ্জের পোশাক কারখানার আগুন,

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার একটি রপ্তানিমুখী পোশাক কারখানার আগুন নেভাতে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ১০টি ইউনিট।শুক্রবার …