খেলাধুলাসর্বশেষ সংবাদ

পিএসজিকে হারিয়ে ফাইনালের পথে ম্যানসিটি

পিএসজিকে হারিয়ে ফাইনালের পথে ম্যানসিটি

ক্রীড়া ডেস্ক: শুরুতেই গোল হজম। তবে দ্বিতীয়ার্ধে প্রবল দাপটে দুই গোল ম্যানসিটির। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালের প্রথম লেগে বুধবার পিএসজির মাঠে ২-১ ব্যবধানে জিতে ফাইনালের পথ অনেকটাই সুগম করলো গার্দিওলা বাহিনী।

পিএসজির হয়ে শেষ ষোলোয় বার্সেলোনা ও কোয়ার্টার-ফাইনালে গত আসরের চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখকে হারানোর নায়ক কিলিয়ান এমবাপে এবার করতে পারেননি তেমন কিছু। পিএসজির সবচেয়ে বড় তারকা নেইমার দারুণ দুটি সুযোগ তৈরি করলেও পাননি সাফল্যের দেখা। শেষের দিকে ১০ জনের দলে পরিণত হওয়া পিএসজি ঘর সামলাতেই ব্যস্ত ছিল বেশি।

ঘরের মাঠে ১৫ মিনিটেই লিড নেয় পিএসজি। ডান দিক থেকে ডি মারিয়ার দারুণ কর্নারে লাফিয়ে কোনাকুনি হেডে দলকে এগিয়ে নেন মার্কিনিয়োস। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিজের শেষ ১২ ম্যাচে এই নিয়ে পাঁচ গোল করলেন ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার।

গোল হজমের পর তেতে ‍ওঠে ম্যানসিটি। কিন্তু প্রথমার্ধে দলটি পায়নি কোনো গোলের দেখা। ৪২ মিনিটে প্রথম নিশ্চিত সুযোগ পায় সিটি। কিন্তু ডি-বক্সে ফাঁকায় বল পেয়ে গোলরক্ষক বরাবর শট নেন ফিল ফোডেন। পাঞ্চ করে ফেরান কেইলর নাভাস।

৬৪ মিনিটে সমতায় ফেরে সিটি। ছোট কর্নারে বল ধরে বাঁ দিক থেকে দারুণ এক ক্রস বাড়ান ডে ব্রুইনে। বল সবার ওপর দিয়ে গিয়ে এক ড্রপে খানিকটা বাঁক নিয়ে দূরের পোস্ট ঘেঁষে জালে জড়ায় (১-১)।

৭১ দ্বিতীয় গোলের দেখা পায় পিএসজি। মাহরেজের ফ্রি কিকে বল লাফিয়ে ওঠা রক্ষণ প্রাচীরে কিম্পেম্বে ও লেয়ান্দ্রো পারেদেসের মাঝ দিয়ে জালে জড়ায় বল (২-১)।

গোলের নেশায় ‍উন্মত্ত পিএসজি ৭৭ মিনিটে পরিণত হয় ১০ জনের দলে। গিনদোয়ানকে পেছন থেকে ফাউল করে লাল কার্ড দেখেন সেনেগালের মিডফিল্ডার ইদ্রিসা গেয়ি।

একজন কম নিয়ে বাকি সময়ে আর তেমন কিছু করতে পারেনি পিএসজি। দারুণ এক জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ম্যানসিটি।

ম্যানসিটির সামনে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে যাওয়ার হাতছানি। ফিরতি লেগে আগামী মঙ্গলবার ইতিহাদ স্টেডিয়ামে পিএসজির আতিথিয়েতা দেবে ম্যানসিটি। ঘরের মাঠে ন্যুনতম ড্র করলেও ফাইনালে যাবে গার্দিওলা বাহিনী। তবে ফাইনালে যেতে হলে ন্যুনতম ২-০ ব্যবধানে জিততে হবে নেইমার-এমবাপেদের। পারবে তারা?