বুধবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২১
হোম » শীর্ষ সংবাদ » নিরাপদ স্যানিটেশন ব্যবস্থাপনায় উন্নয়ন সহযোগীদের সহায়তা কামনা
নিরাপদ স্যানিটেশন ব্যবস্থাপনায় উন্নয়ন সহযোগীদের সহায়তা কামনা

নিরাপদ স্যানিটেশন ব্যবস্থাপনায় উন্নয়ন সহযোগীদের সহায়তা কামনা

২০৩০ সালের মধ্যে সারাদেশে সকলের জন্য নিরাপদ স্যানিটেশন ব্যবস্থাপনা (সেইফলি ম্যানেজড স্যানিটেশন) অর্জনে বিভিন্ন সহযোগী সংস্থা ও সংশ্লিষ্ট সকল স্টেক হোল্ডারদের সমন্বিত সহযোগিতা কামনা করেছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় মন্ত্রী মো: তাজুল ইসলাম।

তিনি বৃহস্পতিবার মন্ত্রণালয় থেকে অনলাইনে যুক্ত হয়ে বিল এন্ড মিলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেসনের সহযোগিতায় জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরে স্থাপিত সিটিওয়াইড ইনক্লুসিভ স্যানিটেশন, এফএসএম, সার্পোট সেলের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহবান জানান।

জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর কর্তৃক আয়োজিত ভার্চুয়াল সভায় সভাপতিত্ব করেন স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। বিভিন্ন উন্নয়ন সহযোগী ও সংশ্লিষ্ট সকল প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মূখ্য সমন্বয়ক জুয়েনা আজিজ এবং গ্লোবাল গ্রোথ অ্যান্ড অপারচুনিটি অফ দ্য বিল অ্যান্ড মিলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট রোজার ভোরিয়েস। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর প্রধান প্রকৌশলী মো: সাইফুর রহমান স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বাংলাদেশে সকল উন্নয়ন সহযোগী প্রতিষ্ঠানসমূহের সার্বিক, কারিগরি ও আর্থিক সহায়তার জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন বাণিজ্যিকভাবে সৃষ্ট দূষণ ও আবর্জনা মোকাবেলা এবং এসডিজি-২০৩০ ও রুপকল্প ২০৪১ লক্ষমাত্রা সামনে রেখে সরকার নিবিড়ভাবে কাজ করছে। উন্নয়ন সহযোগীদের আরো আর্থিক-কারিগরি সহায়তা পেলে সুষ্ঠুভাবে এ কাজ সম্পন্ন করা সহজ হবে।

মন্ত্রী বলেন দেশের মানুষের অর্থনৈতিক পরিবর্তন ও জীবনযাত্রার মান উন্নয়নের ফলে আবাসিক ও বাণিজ্যিকভাবে সৃষ্ট কঠিন ও তরল বর্জ্য ব্যবস্থাপনা জরুরী হয়ে পড়েছে। এসময় কঠিন ও মানববর্জ্য ব্যবস্থাপনায় জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের গৃহীত কার্যক্রমের প্রশংসা করেন তিনি।

বিল এন্ড মিলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন কর্তৃক সিডব্লিউআইএস-এফএসএম সাপোর্ট সেল-এর স্থাপনসহ পরিচালনায় সার্বিক সহযোগীতার জন্য বিল এন্ড মিলিন্ড গেটস ফাউন্ডেশনকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান মন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে সহযোগী প্রতিষ্ঠানসমূহের প্রতিনিধিরা বক্তব্য প্রদান করেন।

বক্তারা স্থানীয় সরকার বিভাগ ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের সাথে সারাদেশে নিরাপদ স্যানিটেশন ব্যবস্থাপনা (সেইফলি ম্যানেজড স্যানিটেশন) অর্জনে তাদের সার্বিক সহযোগীতা প্রদানে অঙ্গীকার করেন।

উল্লেখ্য, সরকার কর্তৃক প্রণিত ইনস্টিটিউশনাল অ্যান্ড রেগুলেটরি ফ্রেমওয়ার্ক অফ ফেসাল স্ল্যাগ ম্যানেজমেন্ট বাস্তবায়নের জাতীয় কর্মপরিকল্পনার আওতায় এই সেলটি স্থাপন করা হয়েছে। কঠিন ও মানববর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য কার্যকরী পরিকল্পনা গ্রহন, উন্নয়ন প্রকল্প প্রণয়ন, স্টেক হোল্ডারদের সক্ষমতা ও জনসচেতনতা বৃদ্ধিসহ এ সংশ্লিষ্ট পরীবিক্ষণ ও মূল্যায়ন কার্যক্রম বাস্তবায়নে স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলোকে এ সেল সার্বিক সহযোগিতা করবে।

আরো পড়ুন

বিমানবন্দরে ধরা পড়া ৩৫০ কচ্ছপের ঠাঁই হলো বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে

বিমানবন্দরে ধরা পড়া ৩৫০ কচ্ছপের ঠাঁই হলো বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ধরা পড়া ৩৫০টি সৌন্দর্যবর্ধক কচ্ছপের ঠাঁই হয়েছে গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ …