সারা বাংলা

জামালপুরে এবার শ্বশুর মেলা

জামালপুরে এবার শ্বশুর মেলা

জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলায় এবার প্রথমবারের মতো পাঁচ দিনব্যাপী শুরু হয়েছে ‘শ্বশুর মেলা’। মেলা চলবে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এ মেলা ঘিরে এলাকায় শুরু হয়েছে উৎসবের আমেজ। উপজেলার তেঘরিয়া জয় বাংলা বাজারে পাশে একটি মাঠে এ ‘শ্বশুর মেলা’ শুরু হয়েছে।

শ্বশুর মেলায় ১০০ টি বিভিন্ন ধরনের দোকান রয়েছে। এদের মধ্যে রয়েছে দেশীয় বস্ত্র,কসমেটিক্স অ্যান্ড বিউটিএইডস, জুতা ও চামড়াজাত পণ্যর ব্যাগ, স্পোর্টস আইটেম,খেলনা, স্টেশনারি, ইমিটেশন জুয়েলারি, প্রক্রিয়াজাত খাদ্যসহ বিভিন্ন পণ্য প্রদর্শন করা হয়েছে।

মেলার আয়োজক কমিটি ও স্থানীয়রা বলছেন, এই শ্বশুর মেলা উপলক্ষ্যে তেঘরিয়া এলাকায় আনন্দ উল্লাস চলছে। মেলার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে, এলাকার জামাইয়েরা তাদের শ্বশুর-শাশুড়িকে দাওয়াত করে এনেছে। শীতকালে এবার এলাকায় জামাইয়ের শ্বশুরবাড়িতে না গিয়ে শশুর-শাশুড়িকে দাওয়াত করে জামাই বাড়িতে এনেছে। মেলায় নাতিদের নিয়ে নানারা ঘুরে বেড়িয়ে আনন্দ উল্লাস করছে।

মেলায় ঘুরতে আসা জান্নাতুল ইসলাম জান্নাত বলেন, মেলায় পরিবারের সঙ্গে ঘুরতে এসেছি, মেলায় ঘুরে খুব ভালো লাগল, মেলায় অনেক কিছুই উঠেছে। অল্প কিছু কেনাকাটা করলাম। আর কিছুক্ষণ ঘোরাফেরা করে চলে যাব।

নাজিম উদ্দিন নামে এক জন বলেন, নাতিনদের সঙ্গে নিয়ে মেলায় ঘুরতে এসেছি। নাতিনদের নাগরদোলা ও ট্রেনে উঠিয়েছিলাম। মেয়ে জামাই দাওয়াত করে এনেছে। জামাই বাড়িতে বিভিন্ন ধরনের পিঠার আয়োজন করেছে মেয়ে।

শ্বশুর মেলার আহ্বায়ক শাহাদাৎ হোসেন উজ্জল বলেন, শ্বশুর মেলা প্রথমবারের মত আয়োজন করা হয়েছে এবার। এলাকায় এই সময়টাতে প্রতিটি বাড়িতে পিঠাপুলির আয়োজন করা হয়। এবার জামাইয়েরা শ্বশুরবাড়িতে না গিয়ে, শ্বশুরদের জামাই বাড়িতে দাওয়াত করা হয়েছে। তাই শীতকালীন মেলার পরিবর্তে শ্বশুর মেলা দিয়েছি। মেলায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষার সর্বোচ্চ চেষ্টা করব।