রাজনীতিলিড নিউজ

জনগণ ভোট প্রত্যাখ্যান করেছে : এলডিপির মহাসচিব

জনগণ ভোট প্রত্যাখ্যান করেছে : এলডিপির মহাসচিব

১২ দলীয় জোটের মুখপাত্র ও বাংলাদেশ এলডিপির মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম বলেছেন, ‘জনগণ ভোট প্রত্যাখ্যান করেছে। এই পুতুল সরকারকে ভোট দেওয়ার জন্য তারা ভোট কেন্দ্রে যাবে না। আগামীকাল দেশে কোনো ভোট হবে না।’

শনিবার (৬ জানুয়ারী) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাব, পল্টন এলাকায় ভোট বর্জন ও অসহযোগ আন্দোলনের পক্ষে ডাকা হরতাল সফলে ১২ দলীয় জোট আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, রাজনৈতিকভাবে আওয়ামী লীগের পরাজয় হয়েছে। তাই তারা জনগণের সঙ্গে প্রতারণার মাধ্যমে নির্বাচন সম্পন্ন করতে চায়। তবে, নির্বাচনের পর এই ফ্যাসিস্ট সরকার আর ক্ষমতায় থাকতে পারবে না। বিদেশিরা এই সরকারের কাছ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে।

সমাবেশে নেতারা বলেন, দেশে অগ্নিসন্ত্রাসের আমদানি ও চর্চা করে আওয়ামী লীগ, আর দোষ দেয় বিরোধী দলের ওপর।

তারা আরো বলেন, শেখ হাসিনা যে পাতানো খেলা শুরু করেছে, তা সফল হবে না। তিনি জোয়ার দেখেছেন, কিন্তু ভাটা দেখেননি। তার প্রতি অনুরোধ, সাজানো নাটক বন্ধ করে জনগণের দাবি মেনে নিন। একটি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দেওয়ার মাধ্যমে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনুন।

তারা আরও বলেন, আওয়ামী লীগ নির্লজ্জ ও বেহায়া রাজনৈতিক দলে পরিণত হয়েছে। এই নির্বাচনে জন-সম্পৃক্ততা না থাকায় আওয়ামী লীগ এখন দেউলিয়া হয়ে ভোট কেনা শুরু করেছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জমিয়তে উলামায়ে ইসলামী বাংলাদেশের মহাসচিব মাওলানা ড. গোলাম মহিউদ্দিন ইকরাম, জাগপার সহ-সভাপতি রাশেদ প্রধান, জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর) ভাইস চেয়ারম্যান হান্নান আহমেদ বাবলু, বাংলাদেশ জাতীয় দলের ভাইস চেয়ারম্যান শামসুল আহাদ, বাংলাদেশ লেবার পার্টির একাংশের চেয়ারম্যান মো. ফারুক রহমান, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো. শামসুদ্দীন পারভেজ প্রমুখ।