সোমবার, ৮ মার্চ ২০২১
হোম » লিড নিউজ » ‘গণতন্ত্রের হাতে হাতকড়া পরিয়েছে বিএনপি-আওয়ামী লীগ’
'গণতন্ত্রের হাতে হাতকড়া পরিয়েছে বিএনপি-আওয়ামী লীগ'

‘গণতন্ত্রের হাতে হাতকড়া পরিয়েছে বিএনপি-আওয়ামী লীগ’

বিএনপি ও আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রের হাতে হাতকড়া পরিয়ে দিয়েছে দাবি করে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদের এমপি বলেছেন, ‘ত্রিশ বছরে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির শাসনামলের চেয়ে জাতীয় পার্টির শাসনামলে সুশাসন বেশি ছিল। জাতীয় পার্টির আমলে বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ছিল, তাই নেতাকর্মীরা বুক ফুলিয়ে কথা বলতে পারে।জাতীয় পার্টির শাসনামলে দুর্নীতি ছিল না, বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড ছিল না, ক্ষমতার অপব্যবহার ছিল না।’

শুক্রবার (০১ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ের মিলনায়তনে পার্টির ৩৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় জিএম কাদের এসব কথা বলেন।

বিএনপির সমালোচনা করে জিএম কাদের বলেন, ‘বিএনপি এখন সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য ডাক-চিৎকার করছে। কিন্তু বিএনপি কি সুষ্ঠু নির্বাচন দিয়েছে কখনও? বিএনপি ও আওয়ামী লীগের মহাসচিবরা প্রায়ই বিভিন্ন ইস্যুতে বাহাস করেন। কিন্তু দুই দলই গণতন্ত্রের হাতে হাতকড়া পরিয়ে গণতন্ত্রের স্বাভাবিক স্বাদ নষ্ট করেছে।’

জিএম কাদের বলেন, ‘বিএনপি ও আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে মোট ৫ বার বিশ্বে দুর্নীতিতে চ্যাাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। আওয়ামী লীগ ও বিএনপি গেল ৩০ বছর ধরে ৭০ ধারা অপব্যবহার করে নিয়ন্ত্রণহীন ক্ষমতা ভোগ করেছে। সংসদ যেখানে সরকারকে নিয়ন্ত্রণ করবে সেখানে সরকারই সংসদকে নিয়ন্ত্রণ করছে। ক্ষমতা নিয়ন্ত্রণের কোনো পথ আর নেই। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতাকর্মীরা দুর্নীতি করে আঙুল ফুলে কলাগাছ হয়ে গেছে।’

বিএনপি জাতীয় পার্টিকে ধ্বংস করতে চেয়েছিল দাবি করে তিনি বলেন, ৯১ সালের নির্বাচনে দেশের সরকার, প্রশাসন, গণমাধ্যমসহ সবকিছুই জাতীয় পার্টির বিপক্ষে ছিল। নির্বাচনে জাতীয় পার্টিকে প্রচার চালাতে দেয়া হয়নি। নেতাকর্মীদের জেলে পাঠিয়ে অবিচার করা হয়েছে। জাতীয় পার্টির জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড ছিল না। সেই অবস্থাতে দেশের জনগণ জাতীয় পার্টিকে ৩৫টি আসনে নির্বাচিত করেছে। পল্লীবন্ধু দুইবার পাঁচটি করে আসনে নির্বাচিত হয়ে প্রমাণ করেছেন জাতীয় পার্টি শুরু থেকেই জনগণের রাজনৈতিক শক্তি। বিএনপি ১৪৪ ধারা জারি করে সভা-সমাবেশ করতে দেয়নি। তারা চেয়েছিল জাতীয় পার্টি যেন ধ্বংস হয়ে যায়। কিন্তু সাধারণ মানুষের ভালোবাসায় এখনো টিকে আছে আমাদের পার্টি। আগামী দিনের রাজনীতিতে জাতীয় পার্টি অনেক সম্ভাবনাময় দল। জাতীয় পার্টিকে ছাড়া কেউই রাষ্ট্র ক্ষমতায় যেতে পারবে না।

আরো পড়ুন

বিএনপিতে জামায়াতের সঙ্গ ছাড়ার আলোচনা

বিএনপিতে জামায়াতের সঙ্গ ছাড়ার আলোচনা

রাজপথের অন্যতম বিরোধীদল বিএনপি তাদের ঘনিষ্ঠ মিত্র জামায়াতে ইসলামীর সাথে জোটগত সম্পর্ক রাখবে কিনা- সেই …