বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯

কেডিএ ভবনে দুদকের অভিযান

ভবনের নকশা অনুমোদনে অনিয়মের অভিযোগে খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (কেডিএ) ভবনে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ অভিযানে ও প্রাথমিক তদন্তে কেডিএ’র বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগের সত্যতা মিলেছে বলে দাবি করেছেন সংশ্লিষ্টরা। অভিযোগের সতত্যা পেতে ভবনের মাপও নিয়েছে দুদকের টিম।

গতকাল সোমবার এই অভিযান চালানো হয়। পাঁচ সদস্যের দুদক টিমের নেতৃত্ব দেন দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. শাওন মিয়া। প্রায় দুই ঘণ্টা ধরে অভিযান চলাকালে দুদক কর্মকর্তারা সুনির্দিষ্ট কিছু ভবনের প্ল্যান ও কাগজপত্র খতিয়ে দেখেন। এছাড়া তারা কেডিএ’র উপ-সহকারী প্রকৌশলী মাহামুদ হাসানসহ প্ল্যানিং ও অথোরাইজ শাখার বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা- কর্মচারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

পরে সহকারী পরিচালক মো. শাওন মিয়া বলেন, নগরীর পশ্চিম টুটপাড়া এলাকায় একটি ভবনের নকশা অনুমোদনে অনিয়ম হয়েছে। অনিয়মের মাধ্যমে নকশা নিয়েও সেই নকশা অনুযায়ী কাজ করা হয়নি। আমরা অভিযুক্ত কর্মকর্তার বক্তব্য নিয়েছি ও ঘটনাস্থলে গিয়েছি। অনুমোদিত নকশার সঙ্গে নির্মাণাধীন ভবনের কোনো মিল নেই। নকশায় যেটুকু জায়গা ছাড়ার কথা ছিলো-তারা ছাড়েনি। ভবনের নকশা অনুমোদনের পর বিষয়টি মনিটরিংয়ের দায়িত্ব ছিল কেডিএ’র। তারা বিষয়টি মনিটরিং করেনি।

তিনি আরও বলেন, নকশা অনুমোদনের বিষয়টি তদন্তে আরও সময় প্রয়োজন। আমরা কেডিএ’র চেয়ারম্যানকে বিষয়টি তদন্ত করে দেখার জন্য সুপারিশ করেছি। এছাড়া প্রধান কার্যালয়ে অধিকতর তদন্তের অনুমতি চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছি।

অবশ্য কেডিএ’র উপ-সহকারী প্রকৌশলী মাহামুদ হাসান নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন। তিনি বলেন, ভবন নির্মাণের নকশা বা প্ল্যান দেখা ও অনুমোদনের দায়িত্ব আমার। এটি বাস্তবায়ন বা মনিটরিংয়ের জন্য অন্যরা দায়িত্বে রয়েছেন। তাই এ বিষয়ে আমাকে দায়ী করা সঠিক নয়।

কেডিএ’র তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী শামীম জেহাদ বলেন, নকশা অনুমোদনে কোনো অনিয়ম হয়নি। নকশা অনুযায়ী ভবন নির্মাণ না করায় কেডিএ ওই ভবনের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিয়ে মালিকপক্ষকে নোটিশ পাঠিয়েছে। সেই নোটিশের শুনানি এখনো চলছে।

আরো পড়ুন

আরও দুই মেট্রোরেলসহ একনেকে ১০ প্রকল্প অনুমোদন

মেট্রোরেলের নতুন দুই প্রকল্পসহ মোট ১০ প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) …