অপরাধসর্বশেষ সংবাদসারা বাংলা

কুমিল্লার শিশু রিফান হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন

কুমিল্লার শিশু রিফান হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন

কুমিল্লা প্রতিনিধি: ১৪ দিনের মাথায় কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার বৈদ্যনাথপুর গ্রামের শিশু রিফান (৫) হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন করেছে পুলিশ।

মাছ ধরার বড়শির ছিপ তৈরির সময় দুষ্টুমি করছিল নিহত শিশু রিফান। তখন বিরক্ত হয়ে শাকিল ইট ছুড়ে মারলে তা মাথায় লাগে। ওই আঘাতে মারা যায় রিফান। এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য নিশ্চিত করেছেন হোমনা-মেঘনা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ফজলুল করিম।

মঙ্গলবার কুমিল্লার আদালতের মাধ্যমে আসামি শাকিলকে জেলহাজতে হয়েছে।

নিহত রিফান ওই গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী মো. শরীফুল ইসলামের ছেলে এবং বৈদ্যনাথপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণির ছাত্র। শাকিল (২২) একই গ্রামের কবির হোসেনের ছেলে।

জানা যায়, সোমবার রাতে মেঘনার পার্শ্ববর্তী মুন্সীগঞ্জ জেলার গজারিয়া উপজেলার রসুলপুর এলাকা থেকে হোমনা-মেঘনা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. ফজলুল করিমের নেতৃত্বে মেঘনা থানার পুলিশ শাকিল নামে ওই যুবককে গ্রেফতার করে।

উল্লেখ্য, উপজেলার বৈধ্যনাথপুর গ্রামের মালেশিয়া প্রবাসী শরিফ হোসেনের পাঁচ বছরের শিশু রিফানুল ইসলাম রিফান গত ১২ জানুয়ারি দুপুরে বাড়ির পাশে খেলাধুলা করতে গিয়ে হারিয়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও না পেয়ে শিশুটির মা রজনী বেগম বাদী হয়ে ওই দিন সন্ধ্যায় মেঘনা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

গত শুক্রবার সকালে উপজেলার ওমরাকান্দা ব্রিজের নিচে বস্তাবন্দি মরদেহ দেখতে পেয়ে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেন। পুলিশ ওই শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে।

মেঘনা থানার ওসি আব্দুল মজিদ জানান, বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে ও তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে পার্শ্ববর্তী মুন্সীগঞ্জ জেলার রসুলপুর এলাকা থেকে শাকিলকে গ্রেফতার করা হয়।

 

Comment here