মঙ্গলবার, ১ ডিসেম্বর ২০২০

করোনা ভাইরাস তৈরির অভিযোগ এনে চীনের বিরুদ্ধে ২০ ট্রিলিয়ন ডলারের ক্ষতিপূরণ মামলা করলেন মার্কিন আইনজীবী

আইনজীবী ল্যারি ক্লেম্যান এবং তার এডভোকেসি গ্রুপ ফ্রিডম ওয়াচ এই মামলা করেছে। তাদের সঙ্গে রয়েছে টেক্সাসের প্রতিষ্ঠান বাজ ফটোস। বিজনেস টুডে, এনডিটিভি

এই মামলায় প্রতিপক্ষ করা হয়েছে চীনের সরকার, চীনের সেনাবাহিনী, উহান ইন্সটিটিউট অব ভাইরোলজি, ইন্সটিউটের পরিচালক শি জেংলি এবং চীনের সেনাবাহিনীর মেজর জেনারেল চেন উই। এই সিনিয়র সেনা অফিসার একজন মহামারী বিশেষজ্ঞ। এই গবেষক নারী বর্তমানে চীনের একাডেমি অব মিলিটারি মেডিক্যাল সায়েন্সেস-এর সুপারভাইজার।

বাদীপক্ষের অভিযোগ, করোনা ভাইরাস একটি জীবাণু অস্ত্র। চীনই এটি তৈরি করেছে। গণহারে মানুষ হত্যা করার উদ্দেশ্যেই এটি তৈরি করা হয়েছে। বিশেষ করে মার্কিন নাগরিকদের হত্যার লক্ষ্যেই চীন এ অস্ত্র নিয়ে গবেষণা শুরু করে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

১৯২৫ সালে জীবাণু অস্ত্র বেআইনি ঘোষণা করা হয়েছে, এ কথা উল্লেখ করে মামলার আর্জিতে বলা হয়, বর্তমান সময়ে এমন একটি অস্ত্র তৈরি সন্ত্রাসবাদেরই নামান্তর।

মামলা দায়েরকারী এই মার্কিনীরা বলছেন, একমাত্র উহানের ওই ল্যাবরেটরিতেই নভেল করোনাভাইরাসের মতো ভাইরাস নিয়ে গবেষণা চলছিলো।

ক্লেমেন এবং অন্যান্য বাদী বলেন, চীনের অনেক গবেষক ও ডাক্তাররা করোনার ভয়াবহতা সম্পর্কে মুখ খুলেছিলেন। সরকার তাদের কণ্ঠরোধ করেছে। তারা এও বলেন, জেনারেল চেন ও তার ৬ সহযোগী আগেই করোনার প্রতিষেধক নিয়েছিলেন। আর এ সব কিছুই করা হয়েছে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের অংশ হিসেবে।

এ অভিযোগের বিচার করার জন্য জুরি বোর্ড গঠন করার দাবি জানিয়েছেন আইনজীবী ক্লেমন ও তার সহযোগীরা।

আরো পড়ুন

অমিত শাহ’র শর্ত পছন্দ হয়নি চাষিদের, দিল্লি অবরুদ্ধের হুঁশিয়ারি

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ’র দেওয়া ‘শর্ত’ খারিজ করে কৃষকরা নিজেদের অবস্থানে অনড় থাকার বার্তা …