সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

অসমে বজরং দলের বাইক মিছিলকে কেন্দ্র করে সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ, কারফিউ, ফ্ল্যাগমার্চ

ভারতের বিজেপিশাসিত অসমে বজরং দলের বাইক মিছিলকে কেন্দ্র করে  সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষে কমপক্ষে ১৪ জন আহত হয়েছে। এছাড়া অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুরের ঘটনায় বেশকিছু যানবাহনের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় প্রস্তাবিত রাম মন্দির নির্মাণের জন্য ভূমিপুজো ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকে কেন্দ্র করে গতকাল বুধবার অসমে উগ্র হিন্দুত্ববাদী বজরং দল বাইক মিছিল বের করে উত্তেজক স্লোগান দিলে উভয়পক্ষের মধ্যে প্রথমে বচসা ও পরে সংঘর্ষ হয়।

বৃহস্পতিবার ‘আজতক’ হিন্দি টিভি চ্যানেলের ওয়েবসাইটে প্রকাশ,  গতকাল (বুধবার) ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কারফিউ জারি করে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসন এব্যাপারে ঠেলামারা ও ঢেকিয়াজুলি থানা এলাকায় কারফিউ জারি  করেছে। শোণিতপুরের জেলা কর্মকর্তা মানবেন্দ্র প্রতাপ সিং কারফিউয়ের ঘোষণা করেন। আইনশৃঙ্খলা জনিত পরিস্থিতির জন্য কারফিউ জারির আদেশ দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

এদিকে, আজ (বৃহস্পতিবার) গোলযোগপূর্ণ এলাকায় সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে ফ্লাগমার্চ করা হয়েছে। জেলা পুলিশ কর্মকর্তা নুমল মহাতো বলেন, জেলা প্রশাসনের অনুরোধে সেনা জওয়ানরা ফ্ল্যাগমার্চ করেছে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ওই ঘটনায় ২ জনকে আটক করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীকে উদ্ধৃত করে গণমাধ্যমে প্রকাশ, বজরং দলের সদস্যরা বাইক মিছিল করার সময় উত্তেজক স্লোগান দেওয়ার অভিযোগকে কেন্দ্র করে দুই সম্প্রদায়ের মধ্যে বিবাদ সৃষ্টি হয়। পুলিশ এসময় প্রথমে বাপক লাঠিচার্জ ও  পরে শূন্যে কয়েক রাউন্ড গুলি চালানোর পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ ও আধাসামরিক বাহিনী সিআরপিএফ পাঠানো হয়।

আরো পড়ুন

চীন-পাকিস্তান যৌথ হামলার আশঙ্কায় ভারত, বিপিন রাওয়াতের হুঁশিয়ারি

ভারতের চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ বা সিডিএস জেনারেল বিপিন রাওয়াত বলেছেন, লাদাখে চলমান চীন-ভারত উত্তেজনার …